তোমাকেই চাই

শব্দ দাও রবিঠাকুর, শব্দ দাও
পনেরো খন্ডকে বন্দী রেখেছি
আলমারীর গহন আঁধারে
যা আমার স্টেটস সিম্বল,
যা আমার অহংকার
বিশ্বাস করো
একটাও পাতা ওল্টাই নি,
তোমার শব্দেরা স্নিগ্ধ মলাটে বন্দী।

এই বিভ্রান্তিকর সময়ের পেন্ডুলাম
অবিরাম দুলে যাচ্ছে বিষাক্ত যামে,
যাপিত জীবনের কাঁটা কাঁপছে __
নামহীন গোত্রহীন ত্রিশুলে
বিদ্ধ হচ্ছি বারবার,
নান্দনিক কবিতারা হারিয়ে যাচ্ছে
কন্ডোমের কদর্য ব্যাবহারে
কখনো ব্রা, কখনো প্যান্টি
তার চেয়েও সাহসী কলমে
যোনি,বীর্য ব্যাবহৃত নির্বিচারে
এ কোন সময় ??

আমি হিন্দু নাকি মুসলমান
ইহুদী নাকি খ্রিষ্টান
কে যেন ছাপ্পা মারে
আমার প্রতিটা রক্ত কণিকায়
ব্যালটের ক্যানভাসে ভাসে
যুক্তি,তর্ক,গল্প
মাটি লাল হয়,চাপাতির কোপে।

ধর্ম ? সেও তো আফিমের নেশা
মন্ত্র না আজান
মুর্তি না নিরাকার
শ্মশান না কবর
যাই হোক না বরকারার
আমি তো মানুষ
অন্তিমে সেই তো তিনহাত।

রবিঠাকুর হে তাই,
আর তাই
স্নিগ্ধতার মোড়কে বাঁধা
তোমাকেই চাই।

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About