তোমার কানে কানে


ঘুমের ভিতর কতোদিন ধ্বস নেমেছে
  ওই শিলং পাহাড়ের গা বেয়ে...
কতোবার আমার বুকের খাঁচা খুলে উড়ে গেছে একখান সাদা আঁচল।
অমিতে'র চোখ, মুখ, বুক ছুঁয়ে কখন যে তা আবার আমার লাবণ্য
বুকে এসেছে ফিরে, তা তুমি জানোনা কবি
আমার চিবুক বেয়ে নেমে গেছে, বন্যার বন্যতা, আর উচ্ছিষ্টের মত
রাতের বালিশে সমুদ্রের সমস্ত নুন মাখামাখি করে
আমি অস্ফুটে বলে উঠেছি, "মিতা"...

তোমার নায়িকারা আমার পাঁজরের ভেতর তাদের চুড়ির রিনরিন বাজিয়ে,
কখনো বা উদ্ধত গ্রীবার বাঁকানো সুর তুলে ঘরের পর ঘর গেঁথেছে, কবি।
আমার প্রাণের উপর পরে থেকেছে, তোমার প্রিয় মুখ...
তোমায় করেছি আমার জন্ম জন্মের প্রভু।
   
এতো প্রেম, এতো প্রেম, এতো প্রেম যে আমার রক্ত বেয়ে
আছড়ে পড়ছিল, তা যে জানা হোতো না, যদি এমন করে না কাঁদাতে আমায়।
তোমার বৃত্তের গহীনে আমার বিষ তূণ রেখেছি সাজিয়ে,
আর যন্ত্রণার প্যাঁটরা গুছিয়ে বয়ে চলেছি অনাবৃত্ত এক নদীপথে.......
প্রতিদিন, প্রতিক্ষণ, প্রতি নি:শ্বাসে।।


0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About