খোঁজা

ভোরের আলোর সাজে খুঁজিনি তোমাকে কোনদিন। আমার মেঘলাদিনের
ক্লান্ত অবকাশে কোথাও থাকো না তুমি। অস্থির চিন্তা ঝেঁপে অবিরাম
গোপন কাটাকুটিতেও  তুমি নেই। জরি-চুমকির আবরণের উচ্ছাসে,
চোখের সূক্ষ্ম কাজলরেখায়, ঠোঁটের আগুনের ফুলকিতে সেই তুমি
অচ্ছুৎ। আমার খেয়ালীদিনে ভাসিয়ে দেওয়া লাল-নীল নৌকোর টলমলে
ভাসানেও তুমি নেই, তুমি নেই। 
কোন ব্যাকুল রাতের অনর্গল নৈঃশব্দ্য চুঁইয়ে জ্যোৎস্না নেমে আসে
আমার ঘরে। মুহূর্ত জুড়ে জুড়ে চুপকথায়  নির্মাণ হয়ে যায় এক মায়াময়
চেতনার। সমস্ত জাগতিক বর্ণমালা ধুয়ে যাচ্ছে শরীর থেকে। কণা কণা
আলোরেণুর নিরন্তর ধারায় স্নান করে নিচ্ছে আমার সত্তা। অনেক বছর
আগে কোথায় যেন নামিয়ে রেখে আসা পিতলের সাজি ভরে রাশি রাশি
বেলফুলের সুবাস ফিরে এসে আমাকে ঝাপটা মারে।অজস্র জোনাকির
উছলে ওঠা আলোয় ঘন অন্ধকারে একদিন তোমাকে ছুঁয়ে ফেলি আমি।


0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

About